ব্লগ

December 2, 2020

কোভিড-১৯ এবং প্রতিবন্ধিতা জয়

বাংলাদেশে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির সংখ্যা নেহায়েত কম নয়। সব মিলিয়ে প্রতিবন্ধী মানুষের সংখ্যা আনুমানিক দেড় কোটি। এর অর্ধেকের বেশি শিশু।
November 29, 2020

একজন মঞ্জু রানী দাশ: মানুষের পাশে ২২ বছর

মঞ্জু রানী অন্যায়ের প্রতিবাদে কখনও পিছপা হননি। নিজের পরিবারে তো নয়ই। একবার তার ঘনিষ্ঠ একজন আত্মীয়া যখন পারিবারিক নির্যাতনের শিকার হলেন তখন তিনি ও তার স্বামী প্রতিবাদ করেছেন। তার অধিকারের বিষয়ে তাকে জানিয়েছেন। সমাজের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের সহায়তায় সালিশের ব্যবস্থাও তিনি নিজেই করেন।
November 24, 2020

এই নিষ্ঠুরতার শেষ কোথায়?

এই ঘটনাগুলো শুধু 'গল্প' নয়, বাস্তব। যে বাস্তবের মুখোমুখি হয়ে শিউলি স্তম্ভিত, ভীত এবং স্বপ্নহারা। যে বাস্তব একজন নারীর সারা জীবনের ক্ষত হয়ে বুকে জমে থাকে! যে বাস্তব থেকে জন্ম নেয়া প্রবল ভয় জীবনের সারল্য কেড়ে নেয়। রাতদিন যা তাকে তাড়া করে ফেরে।
November 12, 2020

সেলাই মেশিনে স্বপ্ন বুনন

তিনি তার এই লাভজনক উদ্যোগের সাথে গ্রামের অন্য মেয়েদেরও এখন যুক্ত করতে চান। অনেকে নিজে দোকান দেবার জন্য তার কাছে কাজ শিখতে আসে। আবার কেউ কেউ ঢাকায় গিয়ে গার্মেন্টেসে কাজ করবে-এই আশায় সেলাইয়ের কাজ শিখতে আসে।
October 20, 2020

কী পরিবর্তন এই আট মাসে?

মার্চে যখন বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হয় তার সঙ্গে বর্তমান পরিস্থিতির অনেকটাই পার্থক্য। তখন গণমানুষের মধ্যে যে সচেতনতা ছিল, তার অনেকটাই এখন বিলুপ্তপ্রায়। লকডাউনের সময়ে মাস্ক পরা, হাত ধোয়া এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার সর্বোচ্চ চেষ্টা ছিল। জরুরি কাজ না থাকলে মানুষ পারতপক্ষে ঘর থেকে বের হতো না। পরিস্থিতি এখন অনেকটাই বদলে গেছে।
October 18, 2020

খোলা মনে, মানুষের উন্নয়নে

এই মহামারিতে অনেক নিম্ন-আয়ের মানুষের কাছে সরকারি বা বেসরকারি সাহায্য পৌঁছালেও তা চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল। আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যাবার কারণে শহর ছেড়ে অনেকে গ্রামে চলে যেতে বাধ্য হয়েছে, কিন্তু সেখানে তাদের উপযোগী কোনো কাজ খুঁজে পাচ্ছে না, ফলে দারিদ্র্য বাড়ছে। আমি মনে করি, বিশেষ করে এই শ্রেণির মানুষের জন্য সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা প্রয়োজন।
October 15, 2020

দারিদ্র্য বিমোচনে আমার অভিজ্ঞতা

দারিদ্র্যের হার শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে হলে পূর্বের অবস্থা বিশ্লেষণ করে দারিদ্র্যের বর্তমান অবস্থা, এবং দারিদ্র্য বিমোচনের ক্ষেত্রে যারা অবদান রেখেছেন তাদের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষাকে পরিকল্পনায় রূপ দিয়ে কাজ করতে হবে। সকলকে নিয়ে গ্রুপ তৈরির মাধ্যমে গ্রামের সকলের কাজের ব্যবস্থা করা, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা তৈরি করা, বিভিন্নরকম কর্মসংস্থানের সৃষ্টি করে আয় বৃদ্ধির ব্যবস্থা করার ক্ষেত্রে অবদান রাখা যেতে পারে। এক্ষেত্রে সরকার ও বেসরকারি সংস্থাগুলোর যৌথ উদ্যোগের বিকল্প নেই।
October 10, 2020

মহামারিতে মানসিক চাপ

প্রার্থনা এবং প্রকৃতির সহচার্য আমাদের মনকে শান্ত রাখতে সাহায্য করে। তাই নিয়মিত নিজের মতো প্রার্থনা করা, মেডিটেশন ও যোগব্যায়াম করা এবং শখের বাগানে বা ছাদে হাঁটাহাঁটি করে সময় কাটালে আমাদের মন শান্ত হয়। সেই সঙ্গে নিজে ভালো থাকার পাশাপাশি আশেপাশের সকলের ভালো থাকার বিষয়েও সচেতন হতে হবে।
September 17, 2020

মেঘ দূর করা আলো

প্রকৃতির এই বৈরি খেয়ালের মাত্রা বিগত বছরগুলোর তুলনায় এবার বেড়েছে। দীর্ঘমেয়াদি বন্যায় অসহায় দেশবাসী। অনেকেই আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছিল, কেউ কেউ হয়েছেন নদী ভাঙনের শিকার। কিছুদিন আগেও যে স্কুলকে ঘিরে স্বপ্ন দেখত শিক্ষার্থীরা, তাদের সামনে এখন শুধু নদীর অথৈই জল। স্কুলটিকে ঘিরে বাচ্চাগুলোর কত স্বপ্ন, কত আনন্দ ছিল, কিন্তু সবই মিলিয়ে গেল নির্মম ও কঠিন বাস্তবতায়।
September 16, 2020

১৬ লক্ষ চশমা!

রিডিং গ্লাস বা চশমাকে দারিদ্র্য বিমোচনের কাজে ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে- এই ভাবনার বিষয়ে জানার সঙ্গে সঙ্গেই আমার মনে এলো বাংলাদেশে কর্মরত ব্র্যাকের স্বাস্থ্যসেবিকাদের কথা। মনে পড়ল আয়েশা আবেদ ফাউন্ডেশনের হাজার হাজার কারিগরদের কথা। জানতাম, চোখে কম দেখার কারণে অনেকেই সূক্ষ্ম কাজ করতে গিয়ে বেকায়দায় পড়েন। এর ফলে অনেকের রোজগার কমে যেত, এমনকি কেউ কেউ কাজও হারিয়েছেন। চোখের ডাক্তার দেখানো হয়তো অনেকের সাধ্যের অতীত, তাই তাদের কাছে একটি সমাধান পৌঁছে দেওয়া অবশ্যই প্রয়োজন।
August 30, 2020

লবণ-গুড় স্যালাইন : উন্নয়নে ওটেপ একটি গেম চেঞ্জার

ডায়রিয়ার প্রকোপ যেখানে বেশি সেই গ্রামাঞ্চলে এটি কোনোভাবেই পৌঁছানো সরকার বা কারও পক্ষেই সম্ভব ছিল না। তার ওপর রয়েছে সংশ্লিষ্ট ব্যয়। তখন বলা হতো যে, প্রতিটি ডায়রিয়ার ক্ষেত্রে যদি দু প্যাকেট স্যালাইন ব্যবহৃত হয়, তাহলে তা প্রজাতন্ত্রের সম্পূর্ণ স্বাস্থ্য বাজেট ছাড়িয়ে যাবে। একটা বিকল্প হিসেবে মনে হলো যদি মানুষকে ঘরে বসে এই স্যালাইন বানানোর কৌশল শেখানো যায় তাহলে কেমন হয়?
August 25, 2020

অপরাজিতাদের গল্প!!

পরিবারের সবাইকে নিয়ে ভালো থাকতে বারবার কেবল নারীকেই ত্যাগ স্বীকার করতে হয়, মানিয়ে নিতে হয়। কেন এই মেনে নেয়া? কী সেই টানাপোড়েন? অন্যের কাছে ভালো হওয়ার নেশা নাকি কোনো দায় মেটানোর চেষ্টা? এমন যদি হতো তার ওপর চেপে বসা সংসারের দায়িত্বগুলো পরিবারের অন্যরাও ভাগ করে নিচ্ছে, তাহলে কেমন হতো সেই জীবন?