All Blogs

December 30, 2020

মতলব: গৌরবময় গবেষণার স্মৃতি

বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনের মাধ্যমে স্বাস্থ্যক্ষেত্রে বাড়তি বৈশ্বিক মনোযোগ এবং বিনিয়োগ দুটোই কিছুটা হলেও হয়েছিল।

সার্বিক উন্নয়ন তথা শিক্ষা, অর্থনীতি বা নারীর ক্ষমতায়ন স্বাস্থ্যের ওপর যে প্রভাব ফেলে তার অনেক তাত্ত্বিক ও প্রায়োগিক উদাহরণও বিশ্বব্যাংকের উল্লিখিত প্রতিবেদনে ছিল। ব্র্যাকের কাজেও আমরা এর প্রতিফলন দেখেছি। যার বেশকিছু নিদর্শন ব্র্যাকের গবেষণা ও মূল্যায়ন বিভাগ থেকে উপস্থাপন করা হয়েছিল। কিন্তু উল্টোটা অর্থাৎ স্বাস্থ্যের ওপর সার্বিক উন্নয়নের প্রভাব আমরা খুব বেশি দেখাতে পারিনি। এমনকি বৈশ্বিকভাবেও এর নিদর্শন খুব একটা চোখে পড়ে না।

১৯৯২ সাল থেকে পরবর্তী প্রায় এক দশক চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলায় ব্র্যাক ও আইসিডিডিআর,বি যৌথভাবে এক নিবিড় গবেষণা চালায়। গবেষণা থেকে প্রাপ্ত ফল বিশ্লেষণ …

December 28, 2020

বাল্যবিবাহের অভিশাপমুক্ত বেলিয়ারা বেগম

বেলিয়ারা বেগম দিনাজপুরের খাজিন্দাপাড়ার জগদল গ্রামে থাকেন। তার ৩ ভাই ও ৩ বোন। বড়ো ভাই বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের নির্ভীক সৈনিক। একসময় তারা ভালোই ছিলেন, কিন্তু সবসময় ভালো থাকা গেল না।

বেলিয়ারা তখন সবে কৈশোরে পা রেখেছেন। মায়ের হলো ভীষণ অসুখ। পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে কয়েক মাস রোগে ভুগে মা মারা গেলেন। সংসারে নেমে এলো আঁধার। বাবা আবার বিয়ে করলেন। নতুন মা এসেই বোনদের বিয়ের জন্য ব্যস্ত হয়ে উঠলেন। একে একে দুই বোনের বিয়ের হলো, কারও বয়সই ১৮ বছর পেরোয়নি।

দুই বোনের পর এবার বেলিয়ারার পালা। তখন তার মাত্র ১৪ বছর বয়স। সৎমা এবং বাবাকে জানিয়েছিলেন তিনি এখনই বিয়ে করতে চান না। কিন্তু …

December 10, 2020

অবহেলা, অপ্রাপ্তি এবং অধিকার

আমি কখনও করুণা চাই না, কারও করুণা নিতেও আমার ভালো লাগে না। যে কারণে আমার সম্প্রদায়ের অন্যদের সাথে আমি ‘কালেকশনে’ খুব একটা যেতে চাইতাম না। আমি আমার নিজের এবং আমার সম্প্রদায়ের প্রত্যেকের একটি সম্মানজনক জীবনের স্বপ্ন দেখি।

“বাবা-মায়ের সাথে গত ১২ বছর ধরে আমার কোনো সম্পর্ক নেই। যেটুকু এগোতে পেরেছি, পুরোপুরি আমার নিজের চেষ্টায়।”

ছোটোবেলা থেকেই মেয়েদের সঙ্গে খেলতে ভালো লাগত। ছেলেরা এই বিষয় নিয়ে অনেক বিরক্ত করত, বাজে মন্তব্য করত। কিন্তু শিক্ষকরা আমাকে খুব আদর করতেন।

আমার ইচ্ছা করত শাড়ি পরতে, তাই সুযোগ পেলে চাচিদের কাছে আবদার করতাম, তাদের শাড়ি পরতাম। বাবা-মা এটা সহ্যই করতে পারতেন না, অনেক মারধর …

December 8, 2020

জীবনের মধ্যগগনে পৌঁছেও থামেনি তার লড়াই

জনবহুল এই দেশে কারও অধিকার কেড়ে নিয়ে তার জীবনকে মূল্যহীন হিসেবে আখ্যা দেওয়া অনেক সহজ।

জাতিগতভাবে যে চর্চা আমরা বহুবছর ধরে করে আসছি, তা হলো নারীর প্রতি বৈষম্য। পুরুষতান্ত্রিক মনোভাবের কাছে একজন নারীর স্বপ্ন, আশা বা লক্ষ্য খুবই ঠুনকো। নারীদের কোনঠাসা করে রাখার সেই প্রতিযোগিতায় পুরুষ দোর্দন্ড প্রতাপশালী, যেন তার ওপর আর কেউ নেই।

যার গল্পের সূচনায় কথাগুলো বলা, তার নাম কনিকা রানী পাল। গ্রামের কারও কাছে তিনি কনিকা মাসি, কারও কাছে দিদি। জীবনের মধ্যগগনে পৌঁছেছেন তিনি, কিন্তু লড়াই তার থামেনি। তিন সন্তানের মধ্যে ছেলে দুইজন কাজ শিখছে, মেয়ের বিয়ে হয়ে গিয়েছে- আপাতদৃষ্টিতে ঝামেলামুক্ত সংসার। কিন্তু আসলেই কি তাই?

মৌলভীবাজারের …

December 2, 2020

কোভিড-১৯ এবং প্রতিবন্ধিতা জয়

করোনাভাইরাস মহামারির টানা ৬-৭ মাস যাবৎ স্কুল বন্ধ। টেলিভিশনে ক্লাস নেওয়া হচ্ছে, স্কুলগুলো ক্লাস নিচ্ছে অনলাইনে। একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিশু, যে লেখাপড়া করে ব্রেইল পদ্ধতিতে, সে কীভাবে ক্লাস করবে অনলাইনে? সবাই যেখানে মাস্ক পরে চলাফেরা করছে, একজন শ্রবণ প্রতিবন্ধী মানুষ যে ইশারা ভাষার ওপর নির্ভরশীল, তিনি আরেকজনের মুখমণ্ডল পুরোটা দেখতে না পেলে ইশারা ভাষা ব্যবহার করতে পারবেন কি?

কোভিডের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা এখনও যে কথাটি বলছেন না, তা হলো, কোভিডের কারণে বিভিন্ন অঙ্গে যে রক্ত শরীরে জমাট বেঁধে যাচ্ছে, সারা দেহের ত্বকের নিচে যে অসংখ্য অতি ক্ষুদ্র রক্তনালি রয়েছে, সেগুলোতেও একইভাবে জমাট বাঁধছে রক্ত। এর ফলে ত্বকের নিচে স্পর্শের মাধ্যমে …

November 29, 2020

একজন মঞ্জু রানী দাশ: মানুষের পাশে ২২ বছর

আগের সপ্তাহে নাড়ু বানিয়েছিলেন মঞ্জু দিদি। মাটির রাস্তা পেরিয়ে কিছুটা পাকা রাস্তা, তার উপর দিয়েই নেতৃসুলভ আত্মবিশ্বাসী ভঙ্গিতে নিজের বাড়ির দিকে হেঁটে যেতে যেতে তিনি বলছিলেন- নাড়ু গতকাল পর্যন্ত ছিল। আমরা আজ আসব আগে জানলে তিনি রেখে দিতেন। এর পরের বার আসলে যেন আগে থেকে তাকে জানিয়ে আসি। অফিসের ভাইরা এসেছি তার বাড়িতে, অথচ নাড়ু খাওয়াতে পারলেন না, এই নিয়ে আফসোস করলেন পরিচয়ের প্রথম ৫ মিনিট।

মঞ্জু রানী দাশের সঙ্গে ব্র্যাকের প্রথম পরিচয় হয় তার জীবনের আর্থিক সংকটের এক সময়ে, কিস্তি ঋণের গ্রাহক হিসেবে। সেই পরিচয়টা কেন দেরিতে হয়েছিল তা নিয়ে হয়তো তার আফসোস থাকতে পারে, কিন্তু নিজের জীবন নিয়ে …

November 24, 2020

এই নিষ্ঠুরতার শেষ কোথায়?

২০১৮ সাল। রাত তখন প্রায় ৮টা। গ্রামের অনেকে তখন ঘুমোতে গেছে। শিউলির (ছদ্মনাম) মা বাড়িতে ছিলেন না, নিজেদের একচালা টিনের ঘরে ঘুমিয়ে আছে ছোটো ভাইবোনেরা। এমন সময় বাইরে থেকে প্রথমে হালকা শিস দেওয়ার আওয়াজ শোনা যায়। নির্জন গ্রাম, ঘরে মা নেই। তবে ১৬ বছর বয়সি শিউলির কাছে এ নতুন কিছু নয়।

২০১২ সালে বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে তাদের দুর্বল ভেবে গ্রামের অনেকে সুযোগ নিতে চাইতো। নানা অজুহাতে মাকে বাড়ি ছাড়ার হুমকি দিত। এমনকি বিবাহিত বড়ো বোন বাড়িতে বেড়াতে আসার পর একবার তো তাকেও ছাড়েনি তারা। ঝগড়ার এক পর্যায়ে তার গায়ে হাত তোলে।

শিউলির সাথে দেখা করতে যাওয়ার আগে আমার …

November 12, 2020

সেলাই মেশিনে স্বপ্ন বুনন

‘আমার জীবনে তো যা হবার হয়েছে, কিন্তু আমি আমার মেয়ের জীবনে কোনো দুঃখ দেখতে চাই না। যা কষ্ট করার আমি করেছি, ওর যেন আর কোনো কষ্ট করতে না হয়। মেয়েটা যেন তার নিজের মতো করে জীবন গড়ার কথা ভাবতে পারে, এটুকু সম্পদ ওর জন্য রেখে যেতে চাই।’

সাবিনা একজন আত্মবিশ্বাসী নারী। তিনি জীবন সংগ্রামে দমে যেতে পারতেন, পারতেন মুখ বুজে স্বামীর নির্যাতন সহ্য করে দিনের পর দিন চলতে। হয়তো এভাবেই একজন সাবিনা হয়েই হারিয়ে যেতেন, বন্দীত্ব বরণ করেই একদিন বেছে নিতেন কেবল সয়ে যাবার পথ। কিন্তু তিনি বেছে নিয়েছেন সেই পথ, যে পথে খুব কম মানুষই যান।

এখন মেয়েকে ঘিরেই …

October 20, 2020

কী পরিবর্তন এই আট মাসে?

দুদিন ধরে মাঠেঘাটে ঘুরছি, অচেনা অনেকের সঙ্গে দেখা হয়েছে। তার মধ্যে মাস্ক পরা দেখেছি সব মিলিয়ে ৬ জন। এদেরই একজনের সঙ্গে কথা বলতে এগিয়ে গেলাম। কেন মাস্ক পরেন-একথা জানতে চাইলাম। তিনি জানালেন, “আমি পড়তে না চাইলেও আমার মেয়ে জোর করে পরিয়ে দেয়। বাড়ি ফিরে গেলে মেয়ে জীবাণুনাশক স্প্রে নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকে।”

তার কথায় যে বিষয়টি গুরুত্ব পেল, তা হলো-যে বাড়িতে নারী অর্থাৎ স্ত্রী, মা, মেয়ে সচেতন, সেখানে অন্যরা সচেতন হতে বাধ্য।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের সাত মাস পার হলো। দীর্ঘ সাত মাস পরে মানুষের সচেতনতার মাত্রা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার চিত্র এবং মনস্তত্ত্ব বোঝার জন্য গিয়েছিলাম গাজীপুরে। গাজীপুরের কালীগঞ্জ ও কাপাসিয়া উপজেলায় …

October 18, 2020

খোলা মনে, মানুষের উন্নয়নে

বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়া শেষ হলে খুব বেশিদিন বসে থাকতে হয়নি, একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি হয়। পাঁচ মাস কাজ করার পর চাকরিটা ছেড়ে গ্রামে ফিরে যাই। কয়েকজন তরুণ মিলে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করি। কিছুদিন পর কাজে একঘেয়েমি চলে এলো। কাজেই সেখানেও স্থায়ী হতে পারলাম না। এরপর ২০০৩ সালে ব্র্যাকের কর্মসূচি সংগঠক (পিও) পদে যোগ দিই।

প্রথমে প্রি-সার্ভিসে যোগদান করি রংপুরে, এক সপ্তাহ পর আমার পোস্টিং হয় সাতক্ষীরার কলারোয়া শাখায়, ইনকাম জেনারেশন ফর ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট (আইজিভিজিডি) প্রোগ্রামে। কাজের সুবাদে সাইকেলে চেপে, কখনও-বা পায়ে হেঁটে গ্রামে গ্রামে ঘুরেছি। সেসময় দরিদ্র মানুষের বাস্তবতা আরও স্পষ্ট হলো। দেখলাম দারিদ্র্যের বহুমাত্রিক রূপ, জানলাম এর কারণসমূহ সম্পর্কে।

২০০৪ …

October 15, 2020

দারিদ্র্য বিমোচনে আমার অভিজ্ঞতা

ব্র্যাকের মাধ্যমে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে ভূমিকা রাখতে পারছেন তিনি। ভালো-মন্দের উপলব্ধিবোধ ও ইচ্ছেশক্তি জাগিয়ে তোলার পাশাপাশি সামান্য সহায়তা পেলে মানুষ কীভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পারে তা তিনি শিখেছেন দরিদ্র মানুষদের কাছ থেকেই। যা তাকে উজ্জীবিত করে, এগিয়ে যেতে পথ দেখায়।

চাকরির প্রথমদিকে ব্র্যাককর্মী মোঃ সিদ্দিকুর রহমান কখনও চিন্তাই করেননি যে একদিন পুরো ফিল্ড অপারেশনের দায়িত্বে তিনি থাকবেন। তবে, মনে আশা ছিল একসময় ম্যানেজমেন্টে কাজ করবেন। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে তিনি দেখেছেন মানুষের ক্ষুধার কষ্ট, দেখেছেন চরম দারিদ্র্য। মানুষ তিনবেলা তো দূরে থাক দুবেলাও ঠিকমতো খেতে পারছে না। ছোটো একটি খুপরি ঘরে পরিবারের সবাই কোনোরকমে থাকে, ছেঁড়া কাপড় পরে। এমনও দেখেছেন, মাত্র একশ …

October 10, 2020

মহামারিতে মানসিক চাপ

আমরা বলি, মানসিক প্রশান্তিই কর্মক্ষেত্রের প্রাণশক্তি।

১০ অক্টোবর বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস। এ বছরের প্রতিপাদ্য, ‘সকলের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য সেবা’। শারীরিক সুস্থতা এবং সচেতনতার পাশাপাশি আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের যত্ন নেয়া প্রয়োজন। আমরা বিশ্বাস করি, “মানসিক প্রশান্তিই কর্মক্ষেত্রের প্রানশক্তি”।

দীর্ঘ সময় ধরে আমরা কমবেশি মানসিক চাপের ভেতর দিয়ে যাচ্ছি। বৈশ্বিক মহামারিতে আজ জনজীবন বিপন্ন। করোনাভাইরাস মহামারির কবলে একদিকে যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে স্বাস্থ্য ও অর্থনীতি, তেমনই গভীরভাবে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। এই চাপ মোকাবিলার ক্ষেত্রে কার্যকর হতে পারে মানসিক স্বাস্থ্য সেবা।

কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ছিলেন কিংবা কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হবার আশংকায় ছিলেন এমন প্রায় ১৫০০ ব্র্যাককর্মীকে মনোসামাজিক সহায়তা প্রদান করেছে ব্র্যাক মেন্টাল …